বিষয়বস্তুর দিকে


ব্লগার অভিজিৎ রায়ের মৃত্যুতে শোকাহত ডয়চে ভলে


Avijit Royবাংলাদেশের ব্লগার-লেখকদের মধ্যে অভিজিৎ রায় ছিলেন অন্যতম৷ বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় তাঁকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা৷ তাঁর ব্লগ ‘মুক্তমনা’ ২০১৪ সালে ডয়চে ভেলের দ্য বব্স পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিল৷

ব্লগার অভিজিৎ রায়কে হামলার সময় সঙ্গে তাঁর স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যাও গুরুতর আহত হন৷ এখনও তিনি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন৷ আলোচিত এই ব্লগারের নিহতের ঘটনায় টুইটারে নিন্দার ঝড় উঠেছে৷ বব্স-এর বাংলা ভাষার বিচার প্রখ্যাত আলোকচিত্রী শহীদুল আলম, নির্বাসিত লেখক তসলিমা নাসরিন, ব্লগার ইমরান এইচ সরকারসহ অনেকেই এই হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন, চেয়েছেন খুনিদের বিচার৷ ইংরেজিতে #অভিজিৎরায় এবং #জাস্টিসফরঅভিজিৎ হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ড করছে বাংলাদেশে৷ এছাড়া লেখক-ব্লগার অভিজিৎ রায়ের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়৷ হত্যাকারীদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবিও জানানো হয়েছে৷

ডয়চে ভলের প্রধান সম্পাদক আলেক্সান্ডার কুডাশেফ এই হত্যাকে ‘‘একটি ঘৃণ্যতার চূড়ান্ত উদাহরণ’ বলে মন্তব্য করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশে বাকস্বাধীনতা এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ – নতুন কোনো ঘটনা নয়৷ প্রতিনিয়তই এরকম উদাহরণ সম্পর্কে আমরা অবহিত হচ্ছি৷ দেশটির বহ সাহসী সাংবাদিক, লেখক এবং ব্লগার, যাঁরা মানবাধিকার, ব্যক্তিস্বাধীনতা এবং ধর্ম নিয়ে নিজস্ব মত পোষন করেন, তাঁদের জীবন প্রতিনিয়ত হুমকির মুখে৷’’

ডয়চে ভেলের বাংলা বিভাগ তাই সেই সব মানুষের ভাষাকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে বদ্ধপরিকর৷

ডয়চে ভেলের সম্পূর্ণ সংবাদবিজ্ঞপ্তিটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে: http://dw.de/p/1Eiwp