বিষয়বস্তুর দিকে


বাংলাদেশের তথ্যচিত্র জিতল ‘দ্য বব্স’ অ্যাওয়ার্ড’


Jury

ডয়চে ভেলের দ্য বব্স প্রতিযোগিতার একটি বিভাগে ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ জয় করেছে ভিডিও তথ্যচিত্র ‘‘রেজর’স এজ’’৷ বাংলাদেশে ব্লগার এবং অ্যাক্টিভিস্টদের উপর ধারাবাহিক হামলা নিয়ে তৈরি তথ্যচিত্রটিতে দেখানো হয়েছে কীভাবে রাজনীতিবিদরা এ সব হামলার পেছনে উৎসাহ জোগাচ্ছেন৷

দ্য বব্স প্রতিযোগিতায় এ বছর চারটি ক্যা্টাগরিতে জুরি অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে৷ সোমবার বার্লিনে এক সংবাদ সম্মেলনে বব্স-এর জুরিমণ্ডলী চূড়ান্ত বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন৷ প্রতিযোগিতার ‘সিটিজেন জার্নালিজম’ বা নাগরিক সাংবাদিকতা বিভাগে পুরস্কার জিতেছে ব্লগার হত্যা নিয়ে তৈরি তথ্যচিত্র ‘‘রেজর’স এজ’’৷

‘নাস্তিকের ধর্মকথা’ ছদ্মনামে ব্লগ লেখা একজন ব্লগার এবং তাঁর স্ত্রী ইয়াসমিন তথ্যচিত্রটি তৈরি করেছেন৷ দ্য বব্স অ্যাওয়ার্ড জেতায় উচ্ছ্বসিত এই ব্লগার ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ডকুমেন্টারিটি আমাদের কাছে, কেবলই একটি ডকুমেন্টারি বা শিল্প প্রচেষ্টা নয়, বরং অ্যাক্টিভিজমের মাধ্যম৷ বর্তমানে বাংলাদেশে যেভাবে একের পর এক মুক্তমনা, নাস্তিক, সেক্যুলার লেখক, ব্লগার, প্রকাশক হত্যার মহোৎসব শুরু হয়েছে, সেই প্রেক্ষাপটকে আমরা তুলে ধরতে চেয়েছি এর মাধ্যমে৷’’

ডয়চে ভেলের দ্য বব্স প্রতিযোগিতায় চলতি বছর বাংলা ভাষার বিচারক ছিলেন ব্লগার বন্যা আহমেদ৷ গতবছর ঢাকায় মৌলবাদীদের হামলায় গুরুতর আহত এই ব্লগার বলেন, ‘‘পরপর দু’বছর বাংলাদেশের ব্লগারদের প্রকল্পকে স্বীকৃতি দেয়ার অর্থ হচ্ছে সেখানকার পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি৷ বরং অবস্থা আরো খারাপ হয়েছে৷ গত কয়েকদিনে চারটি চাপাতি হামলার ঘটনা ঘটেছে৷ মুক্তমনা অ‍্যাক্টিভিস্ট, লেখক, ব্লগার, শিক্ষক, সংখ‍্যালঘু – কেউই দেশটির কোথাও আর নিরাপদে নেই৷’’ গত বছর এই অ্যাওয়ার্ড জয় করেছিল ঢাকায় খুন হওয়া লেখক অভিজিৎ রায়ের মুক্তমনা ব্লগ৷

দ্য বব্স প্রতিযোগিতার দ্বাদশ আসরের অন্যান্য ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ বিজয়ীরা হচ্ছেন প্রগতির জন্য প্রযুক্তি বিভাগে ইরানের অ্যাপ ‘গেরশাদ’, সামাজিক পরিবর্তন বিভাগে ভারতের অ্যাসিড হামলা বিরোধী প্রচারণা, শিল্প এবং সংস্কৃতি বিভাগে জার্মানির ‘সেন্টার ফর পলিটিক্যাল বিউটি’৷

এছাড়া, শিল্প এবং সংস্কৃতি বিভাগে অনলাইন ব্যবহারকারীদের ভোটে ‘ইউজার অ্যাওয়ার্ড’ জয় করেছে বাংলাদেশের আলোকচিত্রী জিএমবি আকাশের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট৷ আর বাংলা ভাষা বিভাগে ‘ইউজার অ্যাওয়ার্ড’ জিতেছে ‘জার্মান প্রবাসে’ ওয়েবসাইট৷ চলতি বছর একলাখের বেশি অনলাইন ভোট গণনা করা হয়৷

দ্য বব্স বিজয়ী প্রকল্পগুলো সম্পর্কে ডয়চে ভেলের মহাপরিচালক পেটার লিমবুর্গ বলেন, ‘‘ডয়চে ভেলে বিভিন্ন অনুষ্ঠান এবং কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে গোটা বিশ্বে বাকস্বাধীনতাকে উৎসাহ দিচ্ছে৷ দ্য বব্স প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমরা বাকস্বাধীনতা রক্ষার বৈচিত্র্যময় এবং মহৎ বিভিন্ন উদ্যোগকে স্বীকৃতি দিচ্ছি৷ বিজয়ী এ সব উদ্যোগ অন্যদের জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করতে পারে৷ কাজের ক্ষেত্রে ভিন্নতা থাকলেও এ সব উদ্যোগ মূলত নিপীড়িত মানুষদের সহায়তায় কাজ করছে৷’’

উল্লেখ্য, চলতি বছর দ্য বব্স প্রতিযোগিতায় ২,৩০০ মনোনয়ন জমা পড়ে৷ এগুলোর মধ্য থেকে ১২৬টি প্রকল্পকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়, যার মধ্য থেকে চারটি প্রকল্প জয় করে জুরি অ্যাওয়ার্ড৷ আগামী জুন মাসে জার্মানির বন শহরে অনুষ্ঠিতব্য গ্লোবাল মিডিয়া ফোরামে ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে৷

বাকস্বাধীনতা অ্যাওয়ার্ড পেলেন তুর্কি সাংবাদিক


সেদাত এর্গিন

তুরস্কের দৈনিক ‘হুরিয়েত’ পত্রিকার সম্পাদক সেদাত এর্গিন ডয়চে ভেলের বাকস্বাধীনতা অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন৷ তবে আগামী জুন তিনি জার্মানিতে পুরস্কার নিতে আসতে পারবেন কিনা, তা নির্ভর করছে এক আইনি লড়াইয়ের উপর৷

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়েপ এর্দোয়ানের অপমানের অভিযোগে গত মার্চ থেকে ‘ট্রায়ালে’ আছেন সেদাত এর্গিন৷ ডয়চে ভেলে বুধবার তাঁর নাম চলতি বছরের বাকস্বাধীনতা আওয়ার্ডের জন্য ঘোষণা করে৷ মূলত মানবাধিকার এবং বাকস্বাধীনতা নিশ্চিত করতে সংগ্রামরত ব্যক্তিদের এই অ্যাওয়ার্ডের জন্য বিবেচনা করা হয়৷

তুরস্কে তাঁর মতো আরো অনেক সাংবাদিক এখন বিচারের মুখোমুখি রয়েছেন, বিশেষ করে তাঁরা, যাঁরা স্বাধীন সাংবাদিকতা এবং বাকস্বাধীনতার চর্চা করছেন, জানান ডয়চে ভেলের মহাপরিচালক পেটার লিমবুর্গ৷

তাঁর প্রথম প্রতিক্রিয়ায় সেদাত এর্গিন ডয়চে ভেলেকে জানান, এই সম্মাননা পাওয়ায় তিনি সম্মানিত বোধ করছেন, কেননা এই পুরস্কার গোটা বিশ্বে বাকস্বাধীনতা রক্ষায় ভূমিকা রাখছে৷

বাকিটা পড়ুন: http://dw.com/p/1IZZu

সমস্যা হচ্ছে? আমরা সমাধানের চেষ্টা করছি


আমরা সম্মান বোধ করছি এ জন্য যে, মানুষ সত্যিই দ্য বব্স অ্যাওয়ার্ড জয় করতে চায় এবং অনলাইন অ্যাক্টিভিজমের দুনিয়ায় আরো অনেকটা এগিয়ে যেতে চায়৷ কিন্তু বিগত বছরের মতো এবারও কিছু মানুষ ‘অবৈধ ট্রিকস’ ব্যবহার করে ভোটের উপর প্রভাব ফেলার চেষ্টা করছে৷

ভোট গ্রহণে স্বচ্ছতা নিশ্চিতে আমরা কিছু কারিগরী উদ্যোগ নিয়েছি৷ তাই একটি অনলাইন ভোট জমা হওয়ার পর এটি মোট ভোটে প্রদর্শিত হলেও যাকে ভোট দেয়া হয়েছে তার সংখ্যায় সঙ্গে সঙ্গে প্রদর্শিত হচ্ছে না৷ কেননা ভোটটা সঠিক উপায়ে দেয়া হয়েছে কিনা সেটা যাচাইয়ের পর তা প্রার্থীর খাতায় যোগ করি আমরা৷ এ জন্য কিছুটা সময় ব্যয় হয়৷

আমরা কয়েকজন ব্যবহারকারীর কাছ থেকে এমন বার্তাও পেয়েছি যে, আমাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে গিয়ে ‘এরর’ ম্যাসেজ পাচ্ছেন তারা৷ আমরা কোনa অভিযোগ পেলে তা খতিয়ে দেখি এবং তা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করি৷ ভোট দেয়ার সময় সমস্যা হওয়ার কথাও জানিয়েছেন কেউ কেউ৷ এক্ষেত্রে পরামর্শ হচ্ছে সম্ভব হলে আপনার ওয়েব ব্রাউজারের সর্বশেষ সংস্করণটি ব্যবহার করুন৷ আর একবার সমস্যা হলে একটু বিরতি নিয়ে কয়েকমিনিট পর আবার চেষ্টা করুন৷ পাশাপাশি আপনি সমস্যার কথা service@dw.com ই-মেল জানাতে পারেন৷ সেক্ষেত্রে কখন এবং কী করতে গিয়ে কোন ব্রাউজার এবং অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে সমস্যা হচ্ছে তা বিস্তারিত জানালে আমাদের পক্ষে সমাধান খোঁজা সহজ হবে৷

আশা করছি পুরো বিষয়টি আপনি বুঝতে পেরেছেন!

ডয়চে ভেলের ‘দ্য বব্স’ প্রতিযোগিতার ভোটাভুটি শুরু


160330_thebobs16_milestoneposting_vote_now_600x240px

ডয়চে ভেলের ‘দ্য বব্স – বেস্ট অফ অনলাইন অ্যাক্টিভিজম’ অ্যাওয়ার্ডের চূড়ান্ত প্রতিযোগীদের ভোটাভুটি শুরু হয়েছে৷ বিশ্বের ১৩টি ভাষার প্রতিযোগীদের সঙ্গে বাংলা ভাষার চার প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছে, যারা বাকস্বাধীনতা ও সমাজের উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য আবদান রাখছেন৷

চলতি বছর ‘দ্য বব্স’ প্রতিযোগিতার জন্য দু’হাজার তিনশোর বেশি মনোনয়ন জমা পড়েছে৷ এ সব মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ের পর দ্য বব্স-এর আন্তর্জাতিক জুরিমন্ডলী ১৪টি ভাষার চূড়ান্ত প্রতিদ্বন্দ্বীদের বাছাই করেন৷ বাংলা ভাষার যেসব প্রতিদ্বন্দ্বী মিশ্র ভাষা বিভাগগুলোতে রয়েছে, তারা হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন বিভাগে সুন্দরবন বাঁচাও আন্দোলন, প্রগতির জন্য প্রযুক্তি বিভাগে মায়া অ্যাপ, নাগরিক সাংবাদিকতা বিভাগে রেজর’স এজ ভিডিও তথ্যচিত্র এবং শিল্প ও সংস্কৃতি বিভাগে জিএমবি আকাশের ইন্সটাগ্রাম পাতা৷

এছাড়া বাংলা ভাষা বিভাগে রয়েছে পাঁচটি ব্লগ৷ এগুলো হচ্ছে ইস্টিশন ব্লগ, জার্মান প্রবাসে, ইতুর ব্লগ, অগ্নি সারথির ব্লগ এবং প্রবীর বিধানের ব্লগ৷ আগামী ২ মে পর্যন্ত তাদের অনলাইনে ভোট দেয়া যাবে৷ ভোট দিতে ভিজিট করুন: http://thebobs.com/bengali/

অনলাইন ব্যবহারকারীদের ভোটে ‘ইউজারস প্রাইজ’ বিজয়ীদের পাশাপাশি দ্য বব্স-এর জুরিমন্ডলী জার্মানির রাজধানী বার্লিনে এক বৈঠকের মাধ্যমে প্রতিযোগিতার ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে, যাদের আগামী জুন মাসে জার্মানির বন শহরে পুরস্কার গ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে৷ ইতোমধ্যে পাঁচটি বাংলাদেশি ব্লগ এবং প্রকল্প ‘জুরি অ্যাওয়ার্ড’ জয় করেছে, যা এক রেকর্ড৷

উল্লেখ্য, চলতি বছর দ্য বব্স প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার হচ্ছে আলসুমারিয়া, সামহয়্যার ইন ব্লগ, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, বাংলাট্রিবিউন, চায়না ডিজিটাল টাইমস, আইএফইএক্স, গ্লোবাল ভয়েসেস, ওয়াজা, সত্যাগ্রহ, ওয়েবদুনিয়া, গোয়া, রোমাডস্কে টিভি, নোভোয়ে ভ্রেমিয়া, মাদিয়াতাভা৷ প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক হ্যাশট্যাগ হচ্ছে #thebobs16